বাংলা ব্লগারে আপনাকে স্বাগতম, সবার আগে সঠিক তথ্য পেতে আমাদের সাথে থাকুন সব সময়। আমাদের বেশির ভাব তথ্য বিশ্লেষন করে তারপর উপস্থাপন করা হয়। শতভাগ তথ্য অনলাইন থেকে সংগ্রহ করে বিশ্লেষনের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়। আপনি চাইলে যে কোন তথ্য আমাদের কাছেও পাঠাতে পারেন।
তো চলুন আজকের বিষয়’টি নিয়ে পড়ে নেওয়া যাক..

প্রথমবার বলিউড ভাইজানের সঙ্গে সিনেমায় কাজ করতে পেরে উচ্ছ্বসিত দিশা পাটানি। তবে এই ছবির প্রধান নায়িকা ক্যাটারিনা কাইফ। ক্যাটের তুলনায় ছোট
ভূমিকা দিশার। টাইগার জিন্দা হ্যায় অভিনেত্রীর ছায়ায় ঢাকা পড়ে যাবেন না তো দিশা? এমন প্রশ্নও রয়েছে বলিমহলে। তবে এই প্রশ্নের খাপখোলা জবাব দিয়েছেন দিশা। বলেছেন, চরিত্রের ‘সাইজ’ তাঁর কাছে কোনো ব্যাপার নয়।

বলিউড সুপারস্টার সালমান খান অভিনীত আসন্ন ভারত-এ শরীরচর্চাশিল্পীর ভূমিকায় দেখা যাবে হালের তারকা দিশা পাটানিকে। এরই মধ্যে এ ছবির প্রথম গান স্লো মোশন মুক্তির পর অন্তর্জাল দুনিয়ায় রীতিমতো ঝড় বয়ে গেছে। দিশার আবেদনময় লুক আর খুনে নাচে দিশেহারা ভক্তকুল। হলুদ শাড়ি পরা দিশার স্টান্ট আর নাচে মুগ্ধ সিনেপ্রেমীরা।

একটি বিনোদন পোর্টালকে দিশা পাটানি বলেছেন, সিনেমায় নিজের চরিত্র ছোট বা বড়, সেসব নিয়ে মাথা ঘামান না তিনি। তাঁর আশা, মানুষ তাঁর চরিত্রের সঙ্গে সম্পর্ক অনুভব করবে।

একদমই ভিন্ন গল্পের ছবি ভারত। এটা একজন মানুষের জীবনযাত্রা নিয়ে। তো, সবকিছু হওয়ার সুযোগও নেই। যদি আমার পার্ট ছোটও হয়, সেটা ব্যাপারই নয়। এমন কিছু করি, যা উত্তীর্ণ হয়, আর এতেই আমার বিশ্বাস, বলেন দিশা।

দিশা পাটানি আরো বলেন, আশা করি, মানুষ আমার চরিত্রের সঙ্গে সম্পর্কিত হবে এবং সার্কাসের ভেতর প্রবেশ করবে। ক্যাটরিনার ছায়ায় ঢেকে যাব, এমনটা ভাবিও না। বরং আমার পার্টের জন্য খুবই উত্তেজিত আমি। সিনেমা নির্বাচনের ক্ষেত্রে বা বিশেষ কোনো চরিত্রের ক্ষেত্রে আমি খুবই নিঃস্বার্থ।

এই ছবির অংশ হতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছেন দিশা পাটানি। তিনি বলেন, এমন সব বড় অভিনেতার সঙ্গে কাজ করতে পেরে আমি খুব খুশি। এমন অভিনেতাদের সঙ্গে কে কাজ করতে চায় না? সালমান স্যার, ক্যাটরিনা ম্যাম অথবা টাবু ম্যাম ও সুনীল গ্রোভার, অনেক কিছু শেখার আছে।

চলতি বছরের ঈদে মুক্তি পাবে আলি আব্বাস জাফর পরিচালিত ভারত। এ ছবি দিয়ে ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে পুনর্মিলন হচ্ছে সালমানের। সিনেমাটি দেখার জন্য মুখিয়ে আছেন ভক্তরা। ভারত-এ সালমান-ক্যাটরিনা ও দিশা ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা যাবে টাবু, নোরা ফাতেহি, সুনীল গ্রোভার, জ্যাকি শ্রফসহ অন্যদের।

দক্ষিণ কোরিয়ার চলচ্চিত্র অ্যান ওডে টু মাই ফাদার-এর রিমেক ভারত। ষাটের দশকের সার্কাসের ওপর নির্মিত এ ছবি। একজন সাধারণ মানুষের জীবনকে কেন্দ্র করে ভারতের ইতিহাসও বর্ণিত হবে এই ছবিতে।

ভারত-এর পর দিশা পাটানিকে মোহিত সুরির মালাঙ্গ সিনেমায় দেখা যাবে। সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে

News Reporter

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *